৪২০ কোটি টাকা ফেরত পাবেন ইউনিপে টু ইউ’র গ্রাহকরা

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : ব্র্যাক ব্যাংকের এলিফ্যান্ট রোড শাখায় জমা থাকা মাল্টিলেভেল মার্কেটিং কোম্পানি (এমএলএম) ইউনিপে টু ইউ’র গ্রাহকদের ৪২০ কোটি টাকা সরকারের কোষাগারে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এই আদেশ দেন। এতে বলা হয়, এই টাকা ইউনিপে টু ইউ’র গ্রাহকরা সরকারের কাছে আবেদন করে নিতে পারবেন।

ব্র্যাক ব্যাংকের রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড শাখায় ইউনিপে টু ইউ’র গ্রাহকদের ৪২০ কোটি টাকা জমা রয়েছে। এর আগে ইউনিপে টু ইউ’র কয়েকজন গ্রাহক টাকা ফেরত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করেছিলেন। আদালতে গ্রাহকদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার অনীক আর হক। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট রাফসান আলভী।

ব্যারিস্টার অনিক আর হক বলেন, আজ আপিল বিভাগে ইউনিপে টু এর মামলার শুনানি হয়েছে। ব্রাক ব্যাংক এলিফ্যান্ট রোড শাখায় যে ৪২০ কোটি টাকার একাউন্ট পাওয়া গেছে। আপিল বিভাগ আজ সেটাকে সরকারি কোষাগারে স্থানান্তর করার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই সঙ্গে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়ার কথা বলা আছে, সেটাও দেবে। এরপর ইউনিপে টু এর গ্রাহক যারা আছেন তারা ৩০ দিনের মধ্যে আবেদন করবেন। তারপর তাদের আবেদন যাচাই-বাছাই করে তারা সিদ্ধান্ত দেবেন।

এই রায়ের ফলে গ্রাহকদের টাকা পাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা সর্বোচ্চ আদালতে বলেছি, আমরা ডিক্রি পেয়েছি। তারপর এটিতে ক্রিমিনাল একটা মামলা হয়ে ক্রোক করার অর্ডার দিয়েছিল। কিন্তু অদ্যাবধি দুদক বা সরকার এটাকে ক্রোক করেনি। সুতরাং আমাদের কেন টাকা দেওয়া হচ্ছে না? তাই আইনের যে ধারা রয়েছে, সেই ধারাগুলো মেনে অবরুদ্ধ এই টাকাগুলো যেন আমাদের ফেরত দেওয়া হয়। আমাদের বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে আপিল বিভাগ বলে দিলেন-হ্যাঁ, অবরুদ্ধ এই টাকাটা সরকারি কোষাগারে নিয়ে আইনগত যারা গ্রাহক তাদের যেন ফেরত দেওয়া হয়।’

গ্রাহকেরা টাকা কীভাবে ফেরত পাবেন তার জবাবে অনিক আর হক বলেন, টাকাগুলো রাষ্ট্রীয় কোষাগারে যাওয়ার পর নির্দিষ্টভাবে আবেদন করতে হবে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top