স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, যুবকের দু’বার যাবজ্জীবন

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলায় ইসকান্দর মিয়া (৩০) নামে এক যুবককে দুইবার যাবজ্জীবন ও আইয়ুব আলী প্রকাশ লেদা মিয়া (২৮) নামে আরেক আসামিকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই রায়ে আদালত তাদের ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ডেরও আদেশ দিয়েছেন।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৬ এর বিচারক সিরাজদ্দৌলা কুতুবী এই রায় দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং এলাকায় অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ২০১৮ সালের ১৩ এপ্রিল অপহরণ করে নিয়ে যায় আসামিরা। পরে তাকে ধর্ষণ করেন এক আসামি। এই ঘটনায় কিশোরী বাবা বাদী হয়ে ডবলমুরিং থানায় মামলা করেন। একই বছরের ৩১ অক্টোবর তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। ২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হয়।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৬ এর স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম সেন্টু জানান, আসামি ইসকান্দর মিয়াকে অপহরণের দায়ে যাবজ্জীবন ও ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবনসহ পৃথক দুই ধারায় দুইবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। তবে দুটি সাজা একসঙ্গে চলবে। আরেক আসামি আইয়ুব আলীকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের কারাদণ্ড দেন।

তিনি জানান, ৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এই রায় ঘোষণা করেন আদালত। এসময় দুই আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে সাজা পরোয়ানা মূলে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top