সন্দ্বীপে বিদেশি মদসহ আটক ১

শেয়ার করুন

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি:  চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার হারামিয়া ইউনিয়নের একটি বসত বাড়ি অভিযান চালিয়ে বিদেশি মদসহ আবু তাহের (৩৮)  নামে যুবককে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাত ১টার দিকে এনাম নাহার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সন্দ্বীপ থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় দুইজনকে আসামি করা হয়েছে। ১নং আসামি আবু তাহের (৩৮) পিতা রুহুল আমিন। ২নং আসামি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মারুফ হাসান ফয়সাল (৩০) পলাতক রয়েছে। তাঁর পিতার নাম মোঃ সেলিম। তাঁর বাড়ি হারামিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে।

স্থানিয়রা জানিয়েছেন, মারুফ হাসান ফয়সাল হারামিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের কমিশনার শাকিল উদ্দিন খোকনের বড় ভাইয়ের ছেলে। কমিশনার খোকনের প্রভাবে সে এসব অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। অনেকে ভয়ে মুখ খোলে না এদের বিরুদ্ধে। এলাকায় চাঁদাবাজি, মদ-জুয়া, কিশোর গ্যাং পরিচালনা সহ নানান অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

সন্দ্বীপ থানা পুলিশের সূত্রে জানা গেছে, গোপন তথ্যে খবর আসে এনাম নাহারের পাশে এক বসতবাড়িতে ইদ উপলক্ষে বিদেশি মদ মজুত করা আছে এই খবরে মধ্যে রাতে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে ২৩ বোতল ভারতীয় মদ সহ ১ জন কে আটক করে।

পুলিশ ও স্থায়ীন সূত্রে জানা যায় আটককৃত ব্যক্তি একজন অটোরিকশা চালক, আটককৃত ব্যক্তিকে পুলিশ প্রাথমিক জিজ্ঞেসাকালে জনসম্মুখে আটককৃত ব্যক্তি বলেন এই মদের বোতলগুলো সন্দ্বীপ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা ও চট্টগ্রাম  উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মাহরুফ হাসান ফয়সালের।

সন্দ্বীপ থানার পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন বলেন ২৩ বোতল ভারতীয় মদ সহ ১ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত ব্যক্তিকে প্রাথমিক জিজ্ঞেসাবাদে জনসম্মুখে ফয়সাল নামের একজনের সম্পৃক্ততার কথা শিকার করেছে। এই বিষয়ে ২ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে।  অপর আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। মাদকবিরোধী অভিযান চলমান থাকবে।

চাটগাঁ নিউজ/এমআর

Scroll to Top