শ্যালিকাকে ধর্ষণের দায়ে ভগ্নিপতির যাবজ্জীবন

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রামে গৃহবধূকে ধর্ষণের অপরাধে তার খালাতো ভগ্নিপতিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই রায়ে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭-এর বিচারক ফেরদৌস আরা এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডিত মো. ফরিদ (৫০) চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার বাসিন্দা। আক্রান্ত গৃহবধূর বাড়িও একই এলাকায়।

মামলার নথিপত্র সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ওই গৃহবধূ তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে ঝগড়া করে ঢাকায় তার নানার বাড়িতে চলে যান। খবর পেয়ে তার মা ফরিদকে ঢাকায় পাঠান তাকে বাড়িতে নেয়ার জন্য। ফরিদ গৃহবধূর খালাতো বোনের স্বামী।

ফরিদ তাকে নিয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি দুপুরে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম নগরীতে পৌঁছান। নগরীর সদরঘাট থানার চট্টেশ্বরী কালিমন্দিরের পাশে একটি হোটেলে ভাত খেয়ে তাকে নিয়ে ফরিদ ওই এলাকায় গোল্ডেন স্টার নামে একটি হোটেলে ওঠেন। সেখানে তাকে মেয়ে হিসেবে পরিচয় দেন ফরিদ। বিকেলে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এ নিয়ে হট্টগোল শুরু হলে হোটেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে গৃহবধূকে উদ্ধারের পাশাপাশি ফরিদকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদি হয়ে সদরঘাট থানায় ফরিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী কফিল উদ্দিন বলেন, অভিযোগ তদন্ত করে পুলিশ ২০২০ সালের ২১ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ওই বছরের ১৫ অক্টোবর আসামির বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) ধারায় অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। আসামির সাফাই সাক্ষ্য ছাড়াও রাষ্ট্রপক্ষ মোট আটজনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

তিনি বলেন, রায় ঘোষণার সময় আদালতে আসামি ফরিদ হাজির ছিলেন। পরে সাজা পরোয়ানামূলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top