মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেলেন টেকনাফে অপহৃত শিক্ষক

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক: কক্সবাজার টেকনাফে গহীন পাহাড়ের থাকা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত হওয়া স্কুল শিক্ষক রবিউল আলম মুক্তিপণ দিয়ে ফিরেছে। টেকনাফ হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া এলাকার আলোর পাঠশালা নামক একটি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

রোববার (৩১ মার্চ) রাত ১১ টার দিকে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে ওই শিক্ষক ঘরে ফিরেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অপহৃত রবিউল আলমের ভাই সাইফুল ইসলাম জানায়, শনিবার (৩০ মার্চ) রাত ৮টার দিকে আমার ভাই ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা(টমটম) করে বাড়িতে ফিরছিলেন।অপহরণকারীরা আমার ভাইকে পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে মুক্তিপণ আদায় করে।

স্থানীয়রা জানান,গেল শনিবার রাত ৮টার দিকে স্কুল শিক্ষক রবিউল আলম টমটম যোগে বাড়িতে ফিরার পথে অপহরণকারীরা টমটম গাড়িটি অবরুদ্ধ করে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে ১২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়।

এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলী বলেন, অপহরণের বিষয়টি শুনেছি। কত টাকা দিয়ে ফিরে এসেছে তা জানিনা। তবে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে অপহৃত রবিউল আলমের বাবার সাথে কথা হয়। তিনি বলেন প্রথমে ১ লাখ ৩ হাজার, পরে নাকি ২ লাখ টাকা মুক্তিপণদাবী করেছিলো।

তবে টেকনাফ থানা ওসি মোহাম্মদ ওসমান গণি বলেন, সব অপহরণ অপহরণ নয়। মায়ানমারের পণ্য পাচারের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে নিজেদের মধ্যে ঝামেলা ছিলো। এবিষয়ে থানায় এসে একটা অভিযোগ দিয়ে গেল। আমার অফিসার অনেকবার যোগাযোগ করেও ভিকটিম পরিবারের কোন ছাড়া পায়নি।

চাটগাঁ নিউজ/এমআর

Scroll to Top