মিরসরাইয়ে কবর খুঁড়তে গিয়ে পাওয়া গেল অবিষ্ফোরিত গ্রেনেড

শেয়ার করুন

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: জেলার মিরসরাইয়ে কবর খুঁড়তে গিয়ে মাটির নিচে গ্রেনেডসদৃশ একটি বস্তু পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (১৪ মে) উপজেলার হিঙ্গুলী ইউনিয়নের মধ্যম আজমনগর এলাকায় কবর খুঁড়তে গিয়ে এ গ্রেনেড পাওয়া গেলেও আজ বুধবার জানাজানি হওয়ার পর পুলিশ এটি উদ্ধার করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার শাহ আলম বলেন, মঙ্গলবার আমার এলাকার বীরমুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াসের কবর খুঁড়তে গিয়ে গ্রেনেডসদৃশ একটি বস্তু পাওয়া যায়। প্রথমে লোহা মনে করে একপাশে রেখে দেন শ্রমিকরা। পরে বস্তুটির ওপরের মাটি পরিষ্কার করলে গ্রেনেড আকৃতির মনে হয়েছে। আমরা কবরস্থানের পাশে এটি রেখে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমার ধারণা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ছোড়া গ্রেনেডটি কোনো কারণে হয়তোবা বিস্ফোরিত হয়নি। দীর্ঘ সময় মাটিচাপা থাকার কারণে ওপরের আবরণের কিছুটা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিষয়টি থানায় জানানো হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, আজ বুধবার জাহিদ হাসান ফিরোজ নামে একজন গ্রেনেডের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করলে স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে জোরারগঞ্জ থানার পুলিশ এসে গ্রেনেডের চারপাশে বালির বস্তা দিয়ে চাপা দেয়।

জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশের টিম পাঠানো হয়েছে। ডিবি পুলিশকেও খবর দেওয়া হয়েছে। তাদের টিম এলে এটি উদ্ধার করা হবে।

Scroll to Top