মিছিল থেকে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুর, পাঁচ যুবদল কর্মী গ্রেপ্তার

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির ‘তারুণ্যের সমাবেশে’ যোগদানের মিছিল থেকে জামালখানে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও আসকারদীঘি আঞ্চলিক লোক প্রশাসন কেন্দ্রের কাঁচের নাম ফলক ভাঙচুরের ঘটনায় পাঁচ যুবদল কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার ( ১৪ জুন) বিকেলে এই ঘটনায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাৎক্ষনিক জামালখান ও বাকলিয়ায় অভিযান চালিয়ে কাজীর দেউড়ি এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন : সাবেক বাকলিয়া ১৮ নং ওয়ার্ড ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মাহবুব সিদ্দিকী (৩৫),সাবেক বাকলিয়া ১৮নং ছাত্রদলের ৪নং ইউনিটের সভাপতি মো. এরফান(৩০),বাকলিয়া ১৮নং ওয়ার্ড যুবদলের কর্মী নুরুল ইসলাম প্রকাশ মাসুম (৩৯), চান্দগাঁও থানা যুবদলের কর্মী মো. ইমন খান (২০), বাকলিয়া ১৮নং ওয়ার্ড যুবদলের কর্মী মো.মহিউদ্দিন হাসান ইমন (২০)।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির জানান, গ্রেপ্তার পাঁচজনই যুবদলের কর্মী। আজ  কাজীর দেউড়ির বিএনপির ডাকা ‘তারুণ্যের সমাবেশে’ যোগদানের উদ্দেশ্যে চান্দগাঁও ও বাকলিয়া এলাকার নেতাকর্মীরা লাঠিসোটা নিয়ে মিছিল করে আসার পথে চট্টগ্রাম কলেজের সামনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উপর অতর্কিত হামলা করে। পরে একই মিছিল থেকে জামালখান এলাকায় দেওয়ালে অঙ্কিত বঙ্গবন্ধুর বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের স্থিরচিত্র সম্বলিত চল্লিশটি ট্যাম্পার্ড, গ্লাস, মুর‍্যাল, নৌকার প্রতীক ভাঙচুর করে কাজীর দেউড়ির দিকে অগ্রসর হয়। পরবর্তীতে আসকারদীঘি সংলগ্ন আঞ্চলিক লোক প্রশাসন কেন্দ্রের কাঁচের নাম ফলক, সিসি ক্যামেরা, মানবতার দেয়াল ভাংচুর করে। উক্ত বিষয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Scroll to Top