মহাসাগরের বিষধর সাপ কক্সবাজার সৈকতে

শেয়ার করুন

কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে দেখা মিলেছে তীব্র বিষধর সামুদ্রিক সাপের। এ নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে জোয়ারের পানিতে তিনটি সাপ ভেসে এলো। যার মধ্যে একটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছেন পর্যটকরা।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) বিকেলেও কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে ভেসে আসে হলুদ পেটযুক্ত ইয়েলো বেলিড সী স্নেক। আর সৈকতে এই ধরনের সাপ দেখলে লোকজনকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ প্রশাসনের।

সমুদ্র বিজ্ঞানীরা জানান, এই হলুদ পেটের সামুদ্রিক সাপ বিষধর সাপ। এটির মাথা অন্য সাপের চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা আকৃতির। এটির শরীরের উপরের অংশ কাল এবং ঘাড় নীল মিক্স করা আর শরীরের নিচের অংশ তথা পেট হলুদ রংয়ের। দেহের নিচের এই হলুদ অংশের জন্য একে ইয়েলো বেলিড স্নেক বলা হয়।

হঠাৎ এই ভিন্ন প্রকৃতির সাপ দেখে পর্যটকদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে কৌতুহল। কামাল উদ্দিন নামের একজন পর্যটক বলেন, আমরা এসেছি আনন্দ করতে। হঠাৎ এই সাপ দেখে আমরা থমকে যায়। এর আগে এরকম সাপ আগে কখনো দেখিনি।

রমজান নামের ঘুরতে আসা এক পর্যটক বলেন, সাপটি বিষধর হতে পারে। দেখতেও অত্যন্ত ভয়ংকর দেখাচ্ছে।

সামুদ্রিক এই সাপ দেখার পর ছুটে আসে সমুদ্র সৈকতের নিরাপত্তাকর্মী জয়নাল আবেদীন। সতর্কতার সাথে সাপটিকে বোতলে নিয়ে সমুদ্রের নিরাপদ স্থানে সাপটিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ইয়ামিন হোসেন বলেন, পর্যটকদের সতর্ক হওয়া উচিৎ। এরকম সাপ দেখলে যেন কেউ পাশে না যায়।

জানা গেছে, এই ইয়েলো বেলিড সাপ উপকূল থেকে দূরে বসবাস করে, অসুস্থ এবং আহত হওয়া ছাড়া সাধারণত এই সাপ উপকূলে আসে না। তাই এই সাপের মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম।

চাটগাঁ নিউজ/আছহাব/এসএ

Scroll to Top