পটিয়ায় কৃষককে খুন করলো মাতাল যুবক

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্কঃ পটিয়ায় মদ্যপায়ীর অস্ত্রের আঘাতে জানিক দে (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে তাকে কুপিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে ফেলে দেন একই এলাকার রূপাস দে। নিহত কৃষক কেলিশহর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের শচীন্দ্র লাল দে’র ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীর থেকে জানা যায়, উপজেলার কেলিশহর ইউনিয়নের পাহাড়ি এলাকা হয়ে মাদকের চালান বিভিন্ন এলাকায় পাচার হয়। কেলিশহর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে সন্ধ্যা নামলেই মদ্যপায়ীদের উৎপাত বেড়ে যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় কৃষক জানিক দে কৃষি কাজ শেষে বাড়ি ফেরার সময় মদ্যপায়ী রূপাস অতর্কিতভাবে ধারালো দা দিয়ে মাথায় আঘাত করে কৃষককে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে ফেলে দেন। পরে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ কৃষকের মরদেহটি উদ্ধার করেন।

এই বিষয়ে পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দিন বলেন, শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কেলিশহর ইউনিয়নে রূপাস দে নামে এক ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই কৃষককে কুপিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে ফেলে দেয়। পরে কৃষকের মরদেহ পানিতে ভেসে ওঠে। স্থানীয় লোকজন খবর দিলে পুলিশ রাতে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এই ঘটনায় ঘাতক রূপাস দে নিখোঁজ রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

চাটগাঁ নিউজ/এসবিএন

Scroll to Top