নিখোঁজের ১০ দিন পর কর্ণফুলীতে মিলল যুবকের মরদেহ

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : কালুরঘাট ফেরিঘাটের পন্টুন থেকে কর্ণফুলী নদীতে লাফিয়ে পড়ে নিখোঁজের ১০ দিন পর জনি মুখার্জীর (৪০) গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ পুলিশ।

বুধবার (১০ জুলাই) রাত ৯টার দিকে কর্ণফুলী নদীর শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

শারীরিক প্রতিবন্ধী জনি মুখার্জী নগরের পাঁচলাইশ এলাকার রাধামাধব আখড়ার মৃত মুকুন্দ মুখার্জীর ছেলে।

জনির ভগ্নিপতি রিটন চক্রবর্তী জানান, সদরঘাট নৌ থানার পুলিশ মরদেহ উদ্ধারের কথা জানালে পরিবারের সদস্যরা সেখানে যান। পরিহিত শার্ট ও প্যান্ট দেখে জনিকে শনাক্ত করা হয়েছে। মরদেহ সম্পূর্ণ পচে গেছে।

গত ৩০ জুন দুপুর দেড়টার দিকে জনি অভিমান করে ঘর থেকে বের হয়ে কালুঘাট ফেরিঘাটের পন্টুন থেকে নদীতে লাফিয়ে পড়েন। বাড়ি না ফেরায় গত ১ জুলাই তার স্ত্রী মুক্তা ভট্টাচার্য পাঁচলাইশ মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরবর্তীতে ফেরিঘাটের সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজ দেখে জনি নদীতে লাফিয়ে পড়ার বিষয়ে নিশ্চিত হন পরিবার। ওই সময় নৌ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল কর্ণফুলী নদীতে উদ্ধার অভিযান চালালেও তার খোঁজ মিলেনি।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top