‘তোমাদের হাত ধরেই মাথা উচুঁ করে দাঁড়াবে এই মাতৃভূমি’

জিনিয়াস মেধাবৃত্তি পুরস্কার উৎসবে ইউএনও ইমন
শেয়ার করুন

আনোয়ারা প্রতিনিধি : জিনিয়াস মেধাবৃত্তি কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মেধাবিকাশে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে মন্তব্য করে আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. ইশতিয়াক ইমন বলেছেন, ‘আজকের মেধাবী শিক্ষার্থীরাই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তাই তাদেরকে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি মানবিক মূল্যবোধের শিক্ষা দিতে হবে। সুস্থ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে মেধা ও মননে যোগ্য নাগরিক হিসেবে বেড়ে উঠার সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে।’

শুক্রবার (৭ জুন) বিকালে আনোয়ারা উপজেলা মিলনায়তনে জিনিয়াস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন আয়োজিত মেধাবৃত্তি পুরস্কার বিতরণ ও শিশু উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

কৃর্তি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে ইউএনও বলেন, ‘সার্টিফিকেট অর্জন করা সহজ কিন্তু প্রকৃত মানুষ হওয়া অনেকটা কঠিন। শারিরীক ও মানসিক বিকাশ ঘটিয়ে দেশ ও জাতির প্রতি দায়বদ্ধতা নিয়ে যারা প্রকৃত মানবিক মানুষ হবে তারাই দেশের সম্পদ হিসেবে পরিগণিত হবে। তোমরাই দেশের ভবিষ্যত। আমার বিশ্বাস তোমাদের হাত ধরেই বিশ্বের দরবারে মাথা উচুঁ করে দাঁড়াবে অমিত সম্ভাবনার এই মাতৃভূমি।’

জিনিয়াস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের পরিচালক সরোজ আহমেদের সভাপতিতে সুশান্ত কুমার শীল, নেলী দেবী ও বিলকিছ আকতারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার সানাউল্লাহ কাউছার, বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি আনোয়ারা শাখার সভাপতি কে এম সরোয়ার হোছাইন, বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় সদস্য ডি আই এম জাহাঙ্গীর আলম, ইঞ্জিনিয়ার রায়হান উদ্দিন সিকদার।

সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার সানাউল্লাহ কাউছার বলেন, ‘একটি দেশ এগিয়ে যায় শুধু শিক্ষার জোরে। শিক্ষা ছাড়া প্রতিযোগিতার বিশ্বে টিকে থাকা যাবে না। তাই জ্ঞানভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। সরকারের সূদুর প্রসারী এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। আমি বলতে চাই, আমাদের আগামী প্রজন্ম শিক্ষার আলোয় এই দেশকে আলোকিত-আলোড়িত করবে। তাদের মধ্যে এদেশের ভবিষ্যত নিহিত। কাজেই তাদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য জিনিয়াসের অসাধারণ এই প্রয়াসকে সাধুবাদ জানাই।’

জিনিয়াস পরিচালক সরোজ আহমেদ বলেন, ‘যেকোন সামাজিক সংগঠন ব্যক্তি স্বার্থের ঊর্ধ্বে উঠে দেশ তথা সমাজের জন্য কোন উদ্যোগ গ্রহণ করলে তা সফল হতে বাধ্য। বিগত ১১ বছর ধরে জিনিয়াস বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন শিক্ষার্থীদের মেধাচর্চার যে ক্ষেত্র সৃষ্টি করেছে সর্বমহলে তা প্রশংসিত। সবার সহযোগিতায় জিনিয়াসের এই কার্যক্রমের আরও ব্যাপ্তি ঘটুক এটাই প্রত্যাশা করছি।

অনুষ্ঠানে আনোয়ারা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মোজাম্মেল হক, এম ডি রাজু, ইমরান বিন ইসলাম, শিক্ষক মুহাম্মদ রিদওয়ানুল হক, রাশেদুল আলম চৌধুরী, আলমগীর হায়দার, মুহাম্মদ নাছিম উদ্দিন, মাসুদুল আলম সিকদার, শাহেদুল ইসলাম, তানজিম আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে চট্টগ্রাম মহানগরীর প্রায় একশ’ স্কুলের কে জি থেকে পঞ্চম শ্রেণির দুই শতাধিক মেধাবী শিক্ষার্থীর হাতে ল্যাপটপ, সনদ, ক্রেস্ট, ব্যাগ ও নগদ অর্থসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ পুরস্কার হিসেবে তুলে দেন অতিথিরা।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top