চার কোটি টাকা নিয়ে উধাও এজেন্সির মালিক

শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: রাজধানীর শ্যামপুর এলাকায় একটি এজেন্সির মালিক ৫৩৮ হজযাত্রীর ৪ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় বুধবার শ্যামপুরের জুরাইন এলাকায় বিক্ষোভ করেছেন ভুক্তভোগীরা। এজেন্সির নাম এসএন ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস এবং মালিকের নাম শাহ আলম। ভুক্তভোগী ও শ্যামপুর থানার সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে।

এজেন্সি সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে ৫৩৮ হজযাত্রী হজ পালনে সৌদি আরবে যাওয়ার কথা রয়েছে। তার মধ্যে ৭৫ জনের ভিসা হয়েছে। আর ৯০ জনের টিকিট কনফার্মড হয়েছে।

এর মধ্যে মঙ্গলবার সকাল থেকে প্রতিষ্ঠানের মালিক শাহ আলমের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এসএন ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরসের জুরাইন ছাড়াও আরেকটি অফিস রয়েছে মোহাম্মদপুর। সেখানে তাকে পাওয়া যায়নি। তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগও করা যাচ্ছে না।

এই হজযাত্রীদের ৪ কোটি টাকার মতো (তার) মালিকের কাছে রয়েছে। মালিকের সন্ধান পাওয়া না গেলে এসব হজযাত্রীর হজ পালন অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলে জানা গেছে।

এই বিষয়ে শ্যামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নজরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ৫৩৮ হজযাত্রীর টাকা নিয়ে পালিয়েছে এজেন্সির মালিক। পুরো পরিবার উধাও। তাদের কারও সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। শুধু প্রতিষ্ঠানের কয়েকজনকে পাওয়া গেছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। হজে যাওয়ার সময় আর বেশি নেই। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি।

হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা এসএন ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরসের বিষয়টি শুনেছি। দ্রুত সমস্যার সমাধান করে ভুক্তভোগী হজযাত্রীদের সৌদি আরবে পাঠানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

Scroll to Top