ভিসা বন্ধের কুফল পেল ওমান এয়ার, যাত্রী সংকটে ফ্লাইট বন্ধ

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশিদের জন্য সব ধরনের ভিসা বন্ধ করার তিন মাস না যেতেই ওমানের জাতীয় বিমান সংস্থা ওমান এয়ারকে বন্ধ করে দিতে হলো বিমানের ফ্লাইট। ভিসা বন্ধ থাকায় বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণপিপাসু লোকজন ও কর্মজীবীরা আর ওমান যাচ্ছে না। ফলে যাত্রী সংকটে চট্টগ্রাম থেকে বিমানের ফ্লাইট বন্ধ করতে বাধ্য হলো ওমান এয়ার।

জানা গেছে, শুধু বাংলাদেশ নয়, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কাতেও বিমানের ফ্লাইট সংখ্যা এবং গন্তব্য কমিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে ওমানের এই বিমান সংস্থা।

এর আগে গত ৩১ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশি নাগরিকদের সব ধরনের ভিসা দেয়া স্থগিত করে ওমান। একই সাথে ‘টুরিস্ট’ কিংবা ‘ভিজিট ভিসা’ নিয়ে ওমান গেলে সেটি ‘ওয়ার্ক ভিসায়’ পরিবর্তন করা যাবেনা বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। ফলে বাংলাদেশ থেকে ওমানগামী সব ধরণের যাত্রী কমে গেছে।

এক বিবৃতিতে ওমান এয়ার বলেছে, চট্টগ্রাম, ইসলামাবাদ, লাহোর এবং কলম্বোতে ফ্লাইট পরিচালনা কার্যক্রম বাতিল করেছে ওমান এয়ার। তবে তাদের ফ্লাইট পরিচালনার নেটওয়ার্কে নতুন করে পাকিস্তানের শিয়ালকোট শহর যুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

ওমান এয়ারের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতীয় রুটেও নির্দিষ্ট কিছু গন্তব্যে ফ্লাইটের সংখ্যা হ্রাস করা হবে। তবে বর্তমানে চালু থাকা ভারতীয় দুই গন্তব্য— লক্ষ্ণৌ এবং তিরুবনন্তপুরমে ফ্লাইট বৃদ্ধি করা হবে।

এর আগে, গত বছরের নভেম্বরে ওমানের সালামএয়ার পাঁচটি ভারতীয় প্রধান শহর— হায়দরাবাদ, কালিকট, জয়পুর, ত্রিবান্দ্রম এবং লক্ষ্ণৌতে ফ্লাইট পুনরায় চালু করার ঘোষণা দিয়েছিল। ভারতে ফ্লাইট পরিচালনার অধিকার সংক্রান্ত বরাদ্দের সীমাবদ্ধতার কারণে এসব শহরে কার্যক্রম বন্ধ করেছিল সালামএয়ার।

কম দূরত্বের কারণে উপসাগরীয় অঞ্চলের বিভিন্ন দেশ এবং ভারতীয় উপমহাদেশের মধ্যে চালু থাকা বিমানের রুটগুলো বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত। এ ছাড়া আরব উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোতে প্রচুরসংখ্যক দক্ষিণ এশীয় প্রবাসী কর্মরত আছেন।

ওমান এয়ার বলেছে, তিনটি গন্তব্যে মৌসুম ভিত্তিতে পরিচালিত হবে। চাহিদা অনুযায়ী গ্রীষ্মকালে উত্তর-পূর্ব তুরস্কের কৃষ্ণসাগর উপকূলের ট্রাবজোন, শীতকালে সুইজারল্যান্ডের জুরিখ এবং মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে যাত্রী পরিবহন করা হবে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top