কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে ভেসে এলো বিষধর সামুদ্রিক সাপ

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্কঃ কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে দেখা মিলল ‘ব্যান্ডেড সী ক্রেইট’ নামে এক বিষধর সাপের। যা বিশ্বের অন্যতম বিষধর সাপের মধ্যে একটি।

শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বিকালে ইনানী সমুদ্র সৈকতে ঢেউয়ের তোরে ভেসে আসে সাপটি। এরপর এটি দেখতে ভিড় করেন পর্যটকসহ স্থানীয়রা।

এই বিষয়ে ইনানী সমুদ্র সৈকতে নিরাপত্তায় নিয়োজিত বিচ কর্মী মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন চাটগাঁ নিউজকে জানান, ঢেউয়ের সাথে একটি সাপ ভেসে আসে। এটি যে একটি বিষধর সাপ সেটি প্রথমে কেউ খেয়াল করেনি। দেখতে সুন্দর হওয়ায় পর্যটকরা ছবি তোলেন। পরে বিষয়টি আমরা জানতে পারলে সাপটিকে সেখান থেকে সমুদ্রে ফিরিয়ে দিই।

সমুদ্র বিজ্ঞানী ও বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়দার সাপটি ব্যাপারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্টে দিয়ে বলেন, এটি ব্যান্ডেড সী ক্রেইট। এ সামুদ্রিক সাপটি বিশ্বের বিষধর সাপের মধ্য অন্যতম। ব্যান্ডেড সী ক্রেইট পূর্ব ভারতীয় এবং পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের প্রবাল প্রাচীরে বাস করে। সাদা দেহে কালো রংয়ের উলম্ব ব্যান্ড থাকার কারণে এ সাপটিকে ব্যান্ডেড সী ক্রেইট নামে অবহিত করা হয়।

তিনি আরও বলেন, যদিও ব্যান্ডেড সী ক্রেইট বিশ্বের সবচেয়ে বিষধর সাপের অন্যতম। বিষধর হলে এ সাপটি শান্ত প্রকৃতির এবং আক্রমণাত্মক না। এমনকি তারা হুমকি বোধ করলেও আক্রমণ করতে দেখা যায়না। ফলে এ সাপটির দ্বারা মানুষের মৃত্যুর রেকর্ড খুবই কম। এ সাপটি দেখে আতঙ্কিত হবার কিছুই নেই। বরং কখনো সৈকতে ভেসে আসলে সামুদ্রিক জীব বৈচিত্র্য রক্ষার স্বার্থে সতর্কতার সাথে এদেরকে নিরাপদে সাগরে অবমুক্ত করে দেয়াই উত্তম।

চাটগাঁ নিউজ/এসবিএন

Scroll to Top