ওমানে বন্যায় স্কুল শিক্ষার্থীসহ ১৮ জনের প্রাণহানি

মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ভারী বৃষ্টি
শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে বন্যার কবলে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১৮ জন মানুষ। মৃতদের অনেকেই স্কুলগামী শিশু।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে হঠাৎ করে টানা বৃষ্টি শুরু হয়েছে। বৃষ্টির কারণে ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ বেশকিছু দেশে জলাবদ্ধতাসহ বন্যা দেখা দিয়েছে।

ওমানের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সুত্রে জানা গেছে, বন্যার পানিতে গাড়ি ভেসে যাওয়ায় ১০ জন স্কুলগামী শিশু ও আরেকজন ওই স্কুল বাসের ড্রাইভার। এছাড়াও এই বন্যায় আরও পাঁচ ব্যক্তি নিখোঁজ আছে বলেও জানা গেছে। নিখোঁজদের উদ্ধারে এবং ঝড় ও বন্যা মোকাবেলায় কাজ করছে দেশটির প্রশাসন।

অন্যদিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ভারী বৃষ্টিপাতে প্রধান মহাসড়কের কিছু অংশ প্লাবিত হয়েছে। দুবাইয়ে অনেক রাস্তায় যানবাহন পরিত্যক্ত হয়ে পড়েছে। বন্যা কবলিত বাসিন্দাদের প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করেছে কর্তৃপক্ষ। সারারাত ধরে চলা বৃষ্টিতে সড়কগুলোতে পানি জমে জলাশয়ের মতো তৈরি হয়েছে। এছাড়া বাতাসের কারণে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান ওঠানামা ব্যাহত হয়েছে।

বৃষ্টিতে রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় শহরের বিভিন্ন স্থানে পানির উপর ভেসে থাকতে দেখা যায় যানবাহন। যান চলাচল স্বাভাবিক না থাকায় কাজে যেতে পারছেন না মানুষ। তবে ইতিমধ্যে পানি নিষ্কাশনের কাজ শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

ওমানের সুলতানের মন্ত্রিসভার পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে শোক প্রকাশ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আ’শারকিয়াহ প্রদেশে সম্প্রতি প্রাণ হারানো স্কুলগামী শিশুদের পরিবার ও আত্মীয় স্বজনের প্রতি মন্ত্রিসভা গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করছে।’

তবে আরব দেশগুলোতে বৃষ্টিপাত খুব হয়না বললেই চলে। ফলে নিয়মিত বৃষ্টিপাতের দেশ না হওয়ায় অনেক রাস্তাঘাট ও এলাকায় পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেই। শহরগুলোর যে অবকাঠামো, তাতে নালাগুলোও সব রাস্তার নিচে। ফলে রাস্তা থেকে পানি সরতে না পারার কারণে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতারও। শুধু আমিরাত বা ওমান নয়, বৃষ্টি হয়েছে বাহরাইন, কাতার ও সৌদি আরবেও।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top