‘একটু অপেক্ষা করুন, হয়ে যাবে কালুরঘাট সেতু’

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : নতুন কালুরঘাট সেতু নির্মাণের জন্য ‘একটু অপেক্ষা’ করার অনুরোধ জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘কালুরঘাট সেতুর নকশা প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন করেছেন। একনেকে পাশ হলেই কাজ শুরু হবে ইনশল্লাহ।’

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রয়াত সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দিন আহমদের স্মরণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বোয়ালখালী উপজেলাসহ দক্ষিণ চট্টগ্রামের মানুষের দীর্ঘদিনের চাওয়া কালুরঘাটে সড়কসহ একটি রেলসেতু। চট্টগ্রাম-৮ আসনের প্রয়াত দুই সংসদ সদস্য মঈনউদ্দিন খান বাদল এবং মোছলেম উদ্দিন আহমেদ সেতুর জন্য সংসদে সোচ্চার ছিলেন। সম্প্রতি চট্টগ্রামে এসে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম কালুরঘাট সেতু নির্মাণে ৪-৫ বছর সময় লাগবে বলে জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ প্রয়াত দুই সাংসদের চাওয়ার কথা তুলে ধরে বলেন, ‘প্রয়াত মোছলেম উদ্দিন আহমেদ ও মঈনউদ্দিন খান বাদল কর্ণফুলী সেতুর জন্য অনেক দৌড়াদৌড়ি করেছেন। আমিও উনাদের সবসময় সহযোগিতা করেছি। সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিবের সঙ্গে আমি বেশ কয়েক দফা কথা বলেছি। একটু অপেক্ষা করুন, এটি হয়ে যাবে।’

মোছলেম উদ্দিন আহমেদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, ‘মিছিলের পেছনের সারির কর্মী থেকে তিনি নেতৃত্বের আসনে আসীন হয়েছিলেন। একজন কর্মী কিভাবে নেতা হতে পারেন, সেটার উদাহরণ তিনি। আজকের নতুন প্রজন্ম যাদের ৩০ বছর বয়স, তারা জানে না বিরোধী দল কি, বিরোধী দলে থাকলে যন্ত্রণা কি, সেটি অনেকে বুঝতে পারে না। সমস্ত প্রতিকূলতাকে উপড়ে ফেলে মোছলেম উদ্দিনের মতো যারা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন, আজ ধীরে ধীরে তাদের অনেকে প্রয়াত হয়েছেন।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, ‘এখন অনেকেই রেডিমেড নেতা হতে চায়, অনেকে টাকা দিয়ে রাজনীতি কিনতে চায়, অনেকে রাতারাতি নেতা বনে যেতে চায়। সেজন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নয়, টাকা দিয়ে রাজনীতি কেনা যায় বিএনপি-জাতীয় পার্টিতে, আওয়ামী লীগে নয়। অর্থ আর বিত্তকে আমাদের দল মূল্যায়ন করে না, কর্মীর মূল্যায়ন করে।’

বিদেশি রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানোয় বিএনপির মাথা খারাপ হয়ে গেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত ৭০টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান আমাদের প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে। জো বাইডেন চিঠি লিখেছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে, বাংলাদেশ সরকারের সাথে তারা কাজ করতে চান। ঋষি সুনাকও চিঠি দিয়েছেন অভিনন্দন জানিয়ে। জাতিসংঘের মহাসচিবও চিঠি লিখে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ইউরোপিয় কমিশনের সবাই অভিনন্দন জানিয়েছেন। সমস্ত পৃথিবী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারকে অভিনন্দন জানাচ্ছে, আর বিএনপি বলছে এখন আমরা লিফলেট বিতরণ করব।’

বিএনপির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা লিফলেট বিতরণ করেন, পেট্রোল বোমা বিতরণ করতে যাবেন না। সেটা যদি করেন উচিত শিক্ষা আপনাদের দেয়া হবে। দলের তরুণ কর্মীদের বলব, বিএনপির কারা পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করার পরিকল্পনা করে, সেটা খুঁজে বের করুন। আমরা তাদের এ কাজ করতে দেব না।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বসে যাওয়া পুরাতন গাড়ির মতো বিএনপিকে দেশি-বিদেশি অনেকে ঠেলেও স্টার্ট দিতে পারেনি। বিএনপির এই পুরাতন গাড়ি স্টার্ট দিতে হলে ব্যাটারি চেঞ্জ করতে হবে। কিন্তু তাদের লন্ডনে থাকা ব্যাটারি ফেলে না দিলে বিএনপির রাজনীতির গাড়ি আর কখনো স্টার্ট হবে না। বিএনপিকে বলব, নেতৃত্বের পরিবর্তন ছাড়া আপনাদের এই দল এবং রাজনীতি আর কখনো সচল হবে না।’

বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজার সঞ্চালনায় স্মরণ সভায় আরও বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ জেলার সভাপতি সংসদ সদস্য মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য আবদুচ ছালাম, দক্ষিণ জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ দাশ এবং তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আব্দুল কাদের সুজন।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top