আমার লোককে আটক করলে হাত কেটে নিবো: বাঁশখালী এমপি

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্কঃ বিতর্ক যেনও পিছু ছাড়ছে না বাঁশখালীর এমপি মুস্তাফিজুর রহমানের। কখনো বা সাংবাদিকদের ওপর হামলা, কখনো দলের সাধারণ সম্পাদককে গালাগালি। এমনকি প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে শোডাউন। এবার আবার পুলিশের হাত কেটে নেয়ার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।
সবশেষ বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) নিয়মিত ডিউটির অংশ হিসাবে পাঠানো পুলিশকে হাত কেটে নেয়ার হুমকি দেন তিনি।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার বাঁশখালী থানার ওসি তোফায়েল আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমানের মধ্যে কথোপকথনের হয়। এ সময় এমপি মুস্তাফিজুর ওসিকে বলেন, ছনুয়ায় কেন পুলিশ পাঠালেন? জবাবে ওসি বলেন, নিয়মিত ডিউটির অংশ হিসেবে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ সময় মোস্তাফিজ বলেন, আমার কোন লোককে আটক করলে পুলিশের হাত কেটে দিব। পরে ওসিকে আবার প্রশ্ন করেন, কেন আমার বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হলো। ওসি বললেন, আপনার নিরাপত্তার জন্য।

এর আগে গত ১ জানুয়ারি চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য নুরুল মোস্তফা চৌধুরী সংগ্রামকে উদ্দেশ্য করে গালি দেয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ৪৭ সেকেন্ডের ভিডিও বক্তব্যে এমপি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন,“আরেকজন আছে গন্ডামারার, নাম তার সংগ্রাম। জেলা পরিষদের নির্বাচনের সময় সে আমার থেকে ২৫ লাখ টাকা ধার নিয়েছিলো। এই টাকা খুঁজায় ও আমাকে পল্টি মেরে ট্রাক মার্কার সমর্থনে চলে গিয়েছে। শুয়ো*রের বাচ্চা, শুয়ো*রের বাচ্চা। ওকে ফোন করা হলেও ও কল ধরেনি। টাকাগুলো আমি খুজবো। টাকা না দিলে তাকে পিটাবো”

এর আগে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে সাংবাদিকের ওপর হামলা করে মোস্তাফিজ। ক্যামেরা ভাঙচুর ও তার মাইক্রোফোনের তার ছিঁড়ে ফেলে। এছাড়া নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে বিশাল সাজসজ্জার রঙিন মঞ্চে করেন তিনি নানান জায়গায়।

চাটগাঁ নিউজ/এসবিএন

Scroll to Top