স্ত্রীর সাথে ঝগড়ার পর স্বামীর আত্মহত্যা

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্কঃ আনোয়ারার বারশত ইউনিয়নে বাসা ভাড়া নিয়ে স্ত্রীর সাথে ঝগড়া করে এক যুবকের আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে উপজেলার বারশত ইউনিয়নের বোয়ালিয়া জাফরের ভাড়া ঘরে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় নিহত ব্যক্তির নাম মো. ইরফান (২৬)। সে উপজেলার ১১নং জুইঁদন্ডি ইউনিয়ন ৪নং ওয়ার্ডের গিয়াস উদ্দিনের পুত্র।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘটনার আগে নিহত ইরফানের সাথে তার স্ত্রীর বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে স্ত্রী ইরফানকে ঘরে আটকে রেখে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। ইরফান বারবার দরজা খোলার জন্য বললেও অভিমান করে স্ত্রী দরজা না খোলায় আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।

নিহতের স্ত্রী শাহিনুর আক্তার (২৩) বলেন, পাঁচ বছর আগে আমাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী কোন কাজ করেনা। আমাদের কোন ছেলে-মেয়েও নেই। বিয়ের পর থেকে সংসারে অভাব অনটন লেগেই ছিল। আমার শাশুড়ি ও স্বামী আমাকে প্রায় সময় নির্যাতন করত। শেষে ভাড়া বাসায় আসলে অভাবের কারনে বাসা ভাড়াও দিতে পারেনা। আমার স্বামী কখনো সিএনজি চালাত আবার কখনো শ্রমিকের কাজ করত। বুধবার রাতে বাসায় ফিরলে আমি বাসা ভাড়ার কথা বলি, তখন স্বামী আমাকে মারলে আমি ঘর থেকে বের হয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর বাসায় ঢুকে দেখি আমার স্বামীর দেহ ফাঁসিতে ঝুলছে। আমি লোকজন ডেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আনোয়ারা থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ মহিউদ্দিন চাটগাঁ নিউজকে বলেন, বাসা ভাড়ার টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বাকবিতণ্ডা হয়। এ ঘটনার জেরে ইরফান নামে এক যুবক আত্মহত্যা করে। রাত দশটার পর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। এই ঘটনায় আনোয়ারা থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

চাটগাঁ নিউজ/এসবিএন

Scroll to Top