সাবেক এমপি নদভী ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে সমন জারি

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক: সদ্য সমাপ্ত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে পরাজিত আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী ও তার সহধর্মিণী রিজিয়া রেজা চৌধুরীর বিরুদ্ধে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। আদালত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে নৌকা প্রতীক পেয়েও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামীলীগ নেতা মোহাম্মদ আবদুল মোতালেবের কাছে বিপুল ভোটে পরাজিত হন।

চট্টগ্রাম জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা বিকল চাকমা বাদী হয়ে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের মামলাটি দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সাবেক সাংসদ আবু রেজা নেজামুদ্দিন নদভী ও তার স্ত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরীর সমন জারি করেছেন।

সংশ্লিষ্ট আদালত সূত্রে জানা গেছে, সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮ এর বিধান লঙ্ঘন করে চট্টগ্রাম-১৫ নির্বাচনী এলাকার আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন এবং তার স্ত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরী গত বছর ৩১ ডিসেম্বর নৌকা মার্কার সমাবেশে চুনতি মাদ্রাসার সিরাতুন্নাবী (সা:) মাহফিলের জন্য এক কোটি টাকা অনুদান, এক সমর্থকের ছেলেকে চাকরির ঘোষণা এবং আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে স্কলারশিপ প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন।

পাশাপাশি সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মোতালেবের কাছে নির্বাচনে ধরাশায়ী নদভীর স্ত্রী রিজিয়া রেজা চৌধুরী পুটিভিলা তাতীপাড়ায় অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে ১ লাখ টাকা অনুদানের ঘোষণা দিয়েছেন।

এসব ঘটনায় নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮ এর ১১/৩ বিধির লঙ্ঘন হয়েছে মর্মে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি নির্বাচন কমিশনে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। ওই প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের বিরুদ্ধে এই মামলা গ্রহণে জেলা জজকে অনুরোধ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, অভিযুক্ত আবু রেজা নেজামুদ্দিন নদভী চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়েছিলেন। তবে তাকে চ্যালেঞ্জ করে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও শিল্পপতি মোহাম্মদ আবদুল মোতালেব।

চাটগাঁ নিউজ/এমআর

Scroll to Top