লিবিয়ায় ঘূর্ণিঝড়-বন্যায় প্রাণ গেল ৬ বাংলাদেশির

শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: লিবিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ড্যানিয়েলের প্রভাবে সৃষ্ট বন্যায় দারনা শহরে অন্তত ছয়জন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এ ছাড়া লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় বন্দরনগরীতে বসবাসরত বাংলাদেশের বেশ কিছু নাগরিক নিখোঁজ রয়েছেন। আজ বুধবার সন্ধ্যায় লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস তাদের ফেসবুক পেজ থেকে এ তথ্য জানা যায়।

লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, দারনা শহরে নিহত ছয়জন বাংলাদেশির মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার মামুন ও শিহাব এবং রাজবাড়ী জেলার শাহীন ও সুজন। তবে দূতাবাসের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত নিহত অন্য দুজনের পরিচয় নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। এ ছাড়া দারনা শহরে বসবাসরত আরও কিছু বাংলাদেশি নিখোঁজ রয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, ঘূর্ণিঝড় ড্যানিয়েল ও বন্যার তাণ্ডবে লিবিয়ার পূর্বাঞ্চল বিশেষত দারনা, সাহাত, আল-বাইদা, আল-মার্জ শহর ভয়াবহভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অতিবৃষ্টির কারণে দারনা বাঁধের ভয়াবহ ধসে সৃষ্ট বন্যায় কয়েক হাজার মানুষ নিহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ ছাড়া বর্তমানে আরও হাজার হাজার মানুষ নিখোঁজ রয়েছেন। এমন অবস্থায় দারনা শহরে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের সর্বশেষ অবস্থা জানার জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যসহ উদ্ধার কার্যক্রমে নিয়োজিত স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে।

এদিকে লিবিয়ার প্রেসিডেন্টের আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছ থেকে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশটিতে মানবিক সহায়তা হিসেবে দ্রুততার সঙ্গে ত্রাণসামগ্রী পাঠানো হচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বাংলাদেশের সি-১৩০ এয়ারক্র্যাফট খুব শিগগির ঢাকা থেকে যাত্রা করবে বলে আশা করা হচ্ছে। ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, শুকনা খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পাঠানো হবে। বন্ধুপ্রতিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলের দুর্গত জনগণের জন্য এই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। লিবিয়ার তাবরুক বিমানবন্দরে লিবিয়া সরকারের স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পাঠানো ত্রাণসামগ্রী গ্রহণ করবেন।

লিবিয়ায় প্রলয়ংকরী ঝড় ও বন্যায় হাজার হাজার মানুষ নিহত ও নিখোঁজের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির সরকার ও জনগণের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

 

Scroll to Top