রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা নেতাসহ ৩ যুবক গ্রেফতার

শেয়ার করুন

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) সেকেন্ড ইন কমান্ডসহ তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে র‍‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে উখিয়ার ২০ নম্বর এক্সটেনশন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি ঘর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় দুটি বিদেশি অস্ত্র, একটি দেশীয় অস্ত্র ও চার রাউন্ড গুলিও উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন: উখিয়ার ৪ নম্বর ক্যাম্পের মো. নুরের ছেলে আবুল হাসিম (৩১), ১২ নম্বর ক্যাম্পের মৃত আলী আহমেদের ছেলে হোসেন জোহার প্রকাশ আলী জোহার (৩২) ও ৬ নম্বর ক্যাম্পের নুর আলমের ছেলে মো. আলম প্রকাশ শায়ের মুছা (৩৫)।

দুপুরে র‌্যাব ১৫ এর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কক্সবাজারস্থ র‌্যাব ১৫ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল এইচ এম সাজ্জাদ হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ সময় তিনি জানান, গ্রেফতার আবুল হাসিম আরসার সেকেন্ড ইন কমান্ড, মো. আলম আরসা প্রধান আতাউল্লাহ জুনুনির দেহরক্ষী এবং আলী জোহার আরসার পরিবহন শাখার কমান্ডার। এদের সবার বিরুদ্ধে হত্যাসহ বিভিন্ন মামলা রয়েছে।

অধিনায়ক লে. কর্নেল এইচ এম সাজ্জাদ হোসেন জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার মধ্যরাতে রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতায় র‌্যাব-১৫ উখিয়ার ২০ নম্বর এক্সটেনশন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের একটি ঘরে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টার সময় ওই তিন আরসা সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা বলেন, মো. আলম প্রকাশ শায়ের মুছা ২০১৬ সালে মিয়ানমার থাকতেই আরসায় যোগদান করেন। তিনি মিয়ানমারে প্রথমে আরসার পাহারাদার হিসেবে কাজ করতেন এবং পরবর্তীতে আরসা নেতাদের এক স্থান হতে অন্য স্থানে মোটরসাইকেলে পৌঁছে দেয়ার কাজ করতেন। পরে আতাউল্লাহ জুনুনির দেহরক্ষী হিসেবে কাজ শুরু করেন। তার বিরুদ্ধে উখিয়া থানায় ৫টি মামলা রয়েছে।

চাটগাঁ ‍নিউজ/এমআর
Scroll to Top