মিয়ানমারে মাদক ও খাদ্য সামগ্রী পাচারকালে আটক ১৯

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক দুইটি অভিযান চালিয়ে মিয়ানমারে পাচারকালে মাদক ও খাদ্য সামগ্রীসহ ১৯ জনকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। অভিযানে তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় আইস, বিদেশী মদ, বিয়ার ও খাদ্যসামগ্রী। কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ তকি এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) এ অভিযান পরিচালনা করে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পূর্ব জোনের অধিনস্থ বিসিজি স্টেশন।

কোস্টগার্ড সূত্র জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মাদকের একটি চালান মিয়ানমার হতে সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপ হয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পাচার হওয়ার তথ্য নিশ্চিত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পূর্ব জোন অধিনস্থ বিসিজি স্টেশন সেন্টমার্টিনের ছেঁড়াদ্বীপ এলাকায় বিশেষ এ অভিযান পরিচালনা করেছে।

অভিযানে ছেঁড়াদ্বীপ কেয়াবনের মধ্যে পাচারের জন্য অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা ৩১ টি ধূসর রংয়ের পরিত্যাক্ত বস্তা উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে কোস্ট গার্ড সদস্যরা বস্তাগুলো তল্লাশী চালিয়ে ১ কেজি ক্রিস্টাল মেথ (আইস), ২৮৫ বোতল বিদেশী মদ ও ৩৩৫ ক্যান বিয়ার জব্দ করে। এসময় কোন পাচারকারী না থাকায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। জব্দকৃত ক্রিস্টাল মেথ (আইস), বিদেশী মদ ও বিয়ার পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়।

অপরদিকে টেকনাফ লম্বরি ঘাট হতে কাঠের বোট যোগে বিভিন্ন প্রকার খাদ্যদ্রব্য ও তৈল শুল্ক ফাঁকি দিয়ে মিয়ানমারে পাচারের খবর পেয়ে সোমবার ৩:৪৫ টায় বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড পূর্ব জোন অধিনস্থ বিসিজি স্টেশন টেকনাফ ওই স্থানে অভিযান চালায়।

উক্ত অভিযানে কয়েকটি বোটসহ ১৯ জন পাচারকারীকে আটক করে কোস্ট গার্ড। বোটগুলো তল্লাশি করে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে মিয়ানমার পাচারের উদ্দেশ্যে রাখা ১৫ বস্তা শুকনা মরিচ, ৪০ বস্তা পেয়াজ, ০১ বস্তা তামাক পাতা, ০৩ বস্তা টেস্টিং সল্ট, ১৮২১ লিটার অকটেন, ৩৭৫২ লিটার সয়াবিন তেল, ১৩৬ লিটার ডিজেল জব্দ করা হয়।

জব্দকৃত মালামাল ও আটককৃত ব্যক্তিদের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ কাস্টমস ও টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Scroll to Top