ভাবির ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে ব্লাকমেইল, দেবর গ্রেপ্তার

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রামে এক গৃহবধূকে ব্ল্যাকমেইল করে ৩০ হাজার টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে দেবরকে গ্রেপ্তার করেছে সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ।

গ্রেপ্তার যুবকের নাম এস এম আতিক শাহরিয়ার (১৯)। তিনি চট্টগ্রামের একটি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছে। নগরীর চান্দগাঁও থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন
জানান, ভুক্তভোগী নারী একজন গৃহিণী। তার স্বামী প্রবাসে থাকেন। শাহরিয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক মেসেঞ্জার থেকে প্রবাসী স্বামী ও ভাবিকে নগ্ন ছবি ও ভিডিও পাঠিয়ে ৩০ হাজার টাকা দাবি করেন। টাকা না দিলে নগ্ন ছবি ও ভিডিও আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবের কাছে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। এতে ভুক্তভোগী ওই নারী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে চান্দগাঁও থানায় জিডি করেন। পরে তিনি সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগে অভিযোগ করেন। এরপর কাউন্টার টেরোরিজম ছায়া তদন্ত শুরু করে। ভিকটিমের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এসএম আতিক শাহরিয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তার ডিভাইস চেক করা হয়। এসময় তার মোবাইলে গ্যালারিতে ছবিগুলো পাওয়া যায়।

জিজ্ঞাসাবাদে আসামির জানান, ভুক্তভোগীর একটি পুরোনো স্মার্ট ফোন থেকে তার কিছু ব্যক্তিগত নগ্ন ছবি/ভিডিও পান তিনি। পরে ফেক ফেসবুক আইডি তৈরি করে সেসব ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে একটি বিকাশ নম্বর পাঠিয়ে টাকা দাবি করেন। এ ঘটনায় নগরের চান্দগাঁও থানায় ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি নিয়মিত মামলা করা হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ 

Scroll to Top