চিনি কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রামের এস আলম সুগার মিলে লাগা আগুন সাড়ে চার ঘণ্টা চেষ্টার পরও নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। আগুন নেভাতে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশ বিমান, নৌ ও সেনাবাহিনীর দল।

লে. কর্নেল আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আগুন একটি গোডাউন শেডের মধ্যে সীমাবদ্ধ।

এদিকে ঘটনা তদন্তে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার সার্বিক ও ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার আনোয়ার পাশা।

এদিকে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের মিডিয়া সেলের ওয়্যারহাউজ ইন্সপেক্টর মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের ১৩টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে আছে। গোডাউনে দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন নিভছে না।’

এর আগে রাত ৮টার দিকে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক আবদুল মালেক বলেন, ‘এস আলম রিফাইন্ড সুগার মিলের আগুন যেন ছড়িয়ে না পড়ে আমরা সেই চেষ্টা করছি। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন সংস্থার ১৮টি ইউনিট কাজ করছে। চিনির মিলের ছয়টি গোডাউনের মধ্যে আগুন এখনো একটিতে সীমাবদ্ধ আছে। এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।’

এস আলম সুগার মিলের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার হাসমত আলী বলেন, ‘কারখানার ১ নম্বর ইউনিটে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে তা ২ নম্বর ইউনিটেও ছড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে ২ নম্বর ইউনিটের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এছাড়া মূল কারখানার যন্ত্রাংশ নিরাপদ রয়েছে।’

এদিকে শিল্প গ্রুপটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আসন্ন রমজানকে সামনে রেখে মজুত করা এক লাখ মেট্রিকটন অপরিশোধিত চিনির পুরোটাই আগুনে পুড়ে গেছে। ফলে রমজানে বাজারে চিনি দেওয়া সম্ভব হবে না।

বিকেল ৪টার দিকে ইউনিট-ওয়ান এর গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। সেখানে এক লাখ মেট্রিকটন অপরিশোধিত চিনি ছিল বলে জানা গেছে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top