চমেক হাসপাতাল থেকে ৫ দিনের শিশু চুরি, তদন্ত করছে পুলিশ

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিওনেটাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (এনআইসিইউ) থেকে পাঁচ দিন বয়সী এক শিশু চুরি হয়েছে।

মঙ্গলবার হাসপাতালের ৩২ নম্বর ইউনিটে এই ঘটনা ঘটে।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ পর্যন্ত নবজাতক শিশুটির হদিস পেতে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছিল পুলিশ।

নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে জন্ম নেওয়া শিশুটি চমেকের এনআইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিল। তার মায়ের নাম আসমা ও পিতার নাম আবু মো. নোমান।

শিশুটির বাবা লোহাগড়া উপজেলার আবু মো. নোমান বলেন, ‘হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত শিশুদের কাছে কাউকে যেতে দেওয়া হয় না। সকালে আমার শাশুড়ি বাচ্চার দেখাশোনা করেন এবং এরপর নাস্তা করতে যান। দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে ফিরে আসার পর আমার শাশুড়ি আমার মেয়েকে আর খুঁজে পাননি। তখন তিনি কর্তব্যরত ডাক্তার ও নার্সদের কাছে আমার মেয়ের সম্পর্কে জানতে চান। খোঁজাখুঁজি করার পরে আমার মেয়েকে না পেয়ে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।’

চমেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম আহসান বলেন, ‘এনআইসিইউ একটি নিরাপদ ইউনিট এবং বাইরের কাউকে এখানে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। বিকেল ৫টার দিকে আমরা বিষয়টি জানতে পারি এবং তদন্ত শুরু করি।’

তিনি আরও বলেন, ‘পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।’

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, ‘সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

এর আগেও চমেক হাসপাতালে শিশু চুরির ঘটনা রয়েছে। অভিযোগ আছে, হাসপাতালের কিছু অসাধু কর্মচারী এই অপরাধের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন।

Scroll to Top