চমেকে রোগী ধর্ষণ, আট বছর পর আসামি ধরা

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা এক নারীকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মো. জালাল আহম্মদকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।

রোববার (৭ এপ্রিল) কর্ণফুলী নদীতে অভিযান চালিয়ে একটি নৌযান থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার জালাল আহম্মদ ওরফে রাকিব আনোয়ারা উপজেলার সুলতান আহম্মদের ছেলে।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার জানান, চট্টগ্রাম মহানগরীর পাঁচলাইশ মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের মামলায় আসামি জালাল আহম্মদের যাবজ্জীবন সাজা দেন আদালত। এরপর থেকে দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন। রোববার আনোয়ারা থেকে কুতুবদিয়া পালানোর সময় তাকে গ্রেফতার হয়।

২০১৫ সালের ২২ সেপ্টেম্বর এক নারী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নাক, কান ও গলা বিভাগে ডাক্তার দেখাতে আসেন। এসময় হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতাকর্মী জামাল ওই নারীকে ডাক্তারের সিরিয়াল দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে হাসপাতালের একটি পরিত্যক্ত রুমে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হলেও জামিনে বেরিয়ে পালিয়ে যান। আট বছর পর তাকে গ্রেফতার করা হয়।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top