চট্টগ্রামে আটকা চার ট্রেন, বগি লাইনচ্যুতির ঘটনা তদন্তে কমিটি

শেয়ার করুন

চাটগাঁ নিউজ ডেস্ক : কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় চট্টগ্রামের সঙ্গে ঢাকা, সিলেট ও ময়মনসিংহের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। দুর্ঘটনার পর চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে চারটি ট্রেন নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে যায়নি। এসব ট্রেন চট্টগ্রাম স্টেশনের বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে অলস বসে আছে।

এদিকে রেললাইন বেঁকে চট্টগ্রাম থেকে জামালপুরগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের ৯টি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে।

রোববার বিকেলে রেলওয়ের বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক (চট্টগ্রাম) মো. সাইফুল ইসলাম এ কমিটি গঠন করেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনিসুর রহমানকে। কমিটির অন্যরা হলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রকৌশলী-১ মো. আবদুল হানিফ, সংকেত ও টেলিযোগাযোগ কর্মকর্তা জাহেদ আরেফীন পাটোয়ারী, চট্টগ্রাম বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (লোকো) সাজিদ হাসান এবং বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ ও ওয়াগন) সজীব হাসনাত।

এদিকে ট্রেন দুর্ঘটনার পর চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে ঢাকাগামী কক্সবাজার এক্সপ্রেস, মহানগর গোধূলী, সোনার বাংলা এক্সপ্রেস এবং ময়মনসিংহগামী ময়মনসিংহ এক্সপ্রেস নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে যায়নি বলে জানান চট্টগ্রাম স্টেশনের ব্যবস্থাপক মো. মনিরুজ্জামান।

মো. মনিরুজ্জামান বলেন, কুমিল্লায় ট্রেন দুর্ঘটনার কারণে দেশের অন্যান্য স্টেশনের সঙ্গে চট্টগ্রামের ট্রেনে যোগাযোগ সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশনা পেলে ট্রেন চলাচলের বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

তদন্ত কমিটির প্রধান আনিসুর রহমান বলেন, বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে জেনেছি, রেললাইন বেঁকে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ সময়ে এ ধরনের ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। কী কারণে ট্রেনের বগিগুলো লাইনচ্যুত হলো, তা তদন্তের মাধ্যমে খুঁজে বের করা হবে।

চাটগাঁ নিউজ/এসএ

Scroll to Top