কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে বিপন্ন প্রাণী লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত

শেয়ার করুন

কাপ্তাই প্রতিনিধি: রাঙামাটির কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানের গহীন অরণ্যে বিপন্ন প্রজাতীর প্রাণী লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত করা হয়েছে।

সোমবার (২৪ জুলাই) রাত সাড়ে ১০ টায় পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা( ডিএফও) ছালেহ মোঃ শোয়াইব খানের নির্দেশনা কাপ্তাই রেঞ্জ কর্মকর্তা খন্দকার মাহমুদুল হক মুরাদ বন বিভাগের সদস্যদের নিয়ে এই বানরটি অবমুক্ত করেন।

রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান, সোমবার( ২৪ জুলাই)  আনুমানিক সন্ধ্যা ৬ টায়  রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার ভেদভেদি আনসার ক্যাম্পের পাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় আনসার সদস্যগন মহা বিপন্ন প্রাণী লজ্জাবতী বানর টি  ( Bangali slow loris)  দেখতে পাই।

সাথে সাথে তাঁরা পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের সদর রেঞ্জে সংবাদ দিলে, সংবাদের ভিত্তিতে  সদর রেঞ্জ অফিসার সঙ্গীয় স্টাফ সহ এটি উদ্ধার করে কাপ্তাই রেঞ্জে বুঝিয়ে দেন।

পরে রাতে আমরা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নির্দেশে লজ্জাবতী বানর টি  আজ রাত সাড়ে ১০  টায়  কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানের গহীন অরণ্যে অবমুক্ত করি ।

এই বন কর্মকর্তা আরোও জানান,  লজ্জাবতী বানর সাধারণত দিনের বেলায় চোখে দেখে না। লজ্জাবতী বানর রাতে চলাফেরা করে এবং খাদ্য খেয়ে জীবনধারণ করে । তাই এটাকে রাতে অবমুক্ত করা হয়েছে।

কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে এই নিয়ে চলতি বছরে তিনটি লজ্জাবতী বানর অবমুক্ত করা হলো বলে তিনি জানান  ।

বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়,  International Union for Conservation of Nature and Natural Resources।( IUCN) একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা যা প্রকৃতি সংরক্ষণ (Nature Conservation) এবং প্রাকৃতিক সম্পদের (Natural Resources) সঠিক এবং টেকসই ব্যবহারের ক্ষেত্রে কাজ করে, তাদের মতে জাতীয় উদ্যানের তালিকায় এই মহা বিপন্ন প্রাণীটির নাম নেই  অথচ  কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে প্রায়ই লজ্জাবতী বানর দেখেছেন বলে বন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান।

Scroll to Top