উখিয়া সীমান্তে হাতবোমার আঘাতে আহত কৃষকের মৃত্যু

শেয়ার করুন

উখিয়া প্রতিনিধি: মিয়ানমারের সংঘাত থেকে পালিয়ে উখিয়ার সীমান্তে ঢুকে পড়া এক রোহিঙ্গার হাতবোমার আঘাতে আহত বাংলাদেশি যুবক আনোয়ারুল ইসলাম (৩৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) রাত ১১টার দিকে একমাস ধরে চিকিৎসাধীন থাকার পর আনোয়ার কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মারা যান।

আনোয়ারুল ইসলাম উখিয়ার পালংখালি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড দক্ষিণ রহমতের বিলের (পুটিবনিয়া) আব্দুস সালামের ছেলে।

এ বিষয়ে পালংখালি ইউপি চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ সীমান্তের ওপারে রাখাইনের অভ্যন্তরের সংঘাত থেকে ফেব্রুয়ারি এক রোহিঙ্গা পালিয়ে উখিয়ার পালংখালির পুটিবনিয়া সীমান্তে ঢুকে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে ধরতে গেলে ওই রোহিঙ্গা ব্যাগ হতে হাতবোমা সদৃশ বিস্ফোরক ছুড়েঁ মারে। এতে উপস্থিত ৪-জন বাংলাদেশি আহত হয়েছিলেন।

এ ঘটনায় আনোয়ারুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। পরে দীর্ঘ এক মাস চিকিৎসা নেওয়ার পর বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) রাত ১১টার দিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি আরও জানান, ওই দিন সংঘাতের সময় থাইংখালি ও রহমেতের বিল সীমান্ত দিয়ে ১৫০ জন মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপির) সদস্য ঢুকে পড়ে।

নিহতের শ্বশুর জাকির হোসাইন বলেন, আমার মেয়ের জামাই আনোয়ার এক মাস পূর্বে পালংখালির পুটিবনিয়া বিলে এক রোহিঙ্গার হাতবোমার আঘাতে আহত হয়েছিল। পরে বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালে সে মারা গেছে।

Scroll to Top