আগ্রাবাদে জামায়াত-শিবিরের হামলায় পুলিশসহ আহত ৪, গাড়ি ভাঙচুর, আটক ২১

শেয়ার করুন

সিপ্লাস ডেস্ক: নগরের আগ্রাবাদের চৌমুহনী এলাকায় জামায়াত-শিবিরের হামলায় পুলিশ সহ অন্তত ৪ জন আহত হয়েছেন। এ সময় তারা পুলিশের একটি ভ্যান সহ দুটি গাড়ি ভাঙচুর করে।

পরে পুলিশ ধাওয়া দিয়ে জামায়াত-শিবিরের ২১ নেতাকর্মীকে আটক করে।

শুক্রবার (২৮ জুলাই) জুমার নামাজের পর ডবলমুরিং থানার চৌমুহনী মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুমার নামাজ শেষে আগ্রাবাদ থেকে জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীরা  মিছিল বের করে। মিছিলটি চৌমুহনী এলাকায় এলে সেখানে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় তারা ইট-পাটকেল ছুড়ে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় ও পুলিশের একটি পিকআপ গাড়িসহ দুটি গাড়ি ভাঙচুর করে। পরে পুলিশের ধাওয়ায় তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের (পশ্চিম জোন) উপ কমিশনার মো. জসিম উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, জামায়াত-শিবিরের হামলায় ডবলমুরিং জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (এসি) মুকুল চাকমার গাড়িটি ভাঙচুর করা হয় এবং তিনি আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। এছাড়াও আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য তাঁদের হামলায় আহত হয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, এসময় ঘটনাস্থল থেকে ২১ জন জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে ।

এদিকে পুলিশের উপর হামলা ও ভাঙচুরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ডবলমুরিং থানা ছাত্রলীগ। থানা ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ সায়েম ও সাধারণ সম্পাদক রাকিব হায়দারের নেতৃত্বে মিছিলটি আগ্রাবাদ, মাজারগেইট, বাদামতলী মোড় হয়ে চৌমুহনী মোড়ে এসে শেষ হয়।

Scroll to Top